print

শুরু হচ্ছে শারদীয় দুর্গোৎসব

0

ঠিকানা রিপোর্ট: হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসব। দুর্গোৎসবকে বরণ করে নিতে প্রস্তুত প্রবাসের হিন্দু সম্প্রদায়। দুর্গোৎসবকে বরণ করে নিতে নিউইয়র্কসহ উত্তর আমেরিকায় বসবাসরত হিন্দু সম্প্রদায় বিভিন্ন মন্দিরে ইতিমধ্যেই বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। কর্মসূচির মধ্যে মহালয়া হয়ে গিয়েছে। ৬ষ্ঠী, সপ্তামী, অষ্টমী, নবমী এবং দশমী সামনে। এবার দেবির আগমন ঘটবে ঘোটকে এবং গমন দোলায়।
সর্বজনীন পূজা উদযাপন পরিষদ ইউএসএ ইনকের উদ্যোগে শারদীয় দুর্গোৎসবের আয়োজন করা হয়েছে উডসাইডের দিব্যধাম সেবাশ্রম মন্দিরে (দ্বিতীয় তলায়)। সর্বজনীন পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি প্রবীর কুমার রায় এবং সাধারণ সম্পাদক প্রভাষ মন্ডল জানিয়েছেন, অন্যান্য বছরের মত এবারো মহাধুমধামে দুর্গোৎসব পালন করা হবে। কর্মসূচির মধ্যে ৯ অক্টোবর মহালয়া ছিলো। ১৪ অক্টোবর মহা ৬ষ্ঠী। দেবীর বোধন, আমন্ত্রণ ও অধিবাস। সময় সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ৯টা। ১৫ অক্টোবর মহা সপ্তমী। দুপুর ১২টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত। ১৬ অক্টোবর মহাঅষ্টমী ও কুমারি পূজা এবং বলিদান। দুপুর ১২টা থেকে রাত ১০টা। ১৭ অক্টোবর মহানবমী দুপুর ১২টা থেকে রাত ১০টা। মহাদশমী, সিঁদুর দান ও প্রতিমা বিসর্জন। দুপুর ১২টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত। প্রতিদিন পূজাচলাকালীন পুষ্পাঞ্জলি দুপুর ১টা থেকে রাত ৯টা, প্রসাদ বিতরণ দুপুর ২টা থেকে রাত ৯টা, সন্ধ্যারতি সন্ধ্যা ৬টায় বিশ্বশান্তির জন্য প্রার্থনা সন্ধ্যা ৬টা ৪৫ মিনিট এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে দেশের এবং প্রবাসের জনপ্রিয় শিল্পীরা সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশন করবেন।
জ্যাকসন হাইটস পূজা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শারদীয় দুর্র্গোৎসবের আয়োজন করা হয়েছে জ্যাকসন হাইটসের বেলাজিনো অডিটোরিয়ামে। আয়োজক সূত্রে জানা গেছে, পূজা শুরু হবে ১৫ অক্টোবর এবং শেষ হবে ১৮ অক্টোবর। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ১৬ অক্টোবর সপ্তমী পূজা সকাল ১১টায়, ভোগ দুপুর ১টায়, আরতি দুপুর ১টা ১৫ মিনিটে এবং অঞ্জলি দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে। ১৬ অক্টোবর মহাঅষ্টমী। পূজা সকাল ১১টা, ভোগ দুপুর ১টায়, আরতি দুপুর ১টা ১৫ মিনিটে, অঞ্জলি দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে এবং সন্ধ্যা পূজা দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে। ১৭ অক্টোবর মহানবমী। ভোগ দুপুর ১টায়, আরতি দুপুর ১টা ১৫ মিনিটে, অঞ্জলি দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে। ১৮ অক্টোবর বিসর্জন। সকাল ১০টা ৩০ মিনিটে এবং সিঁধুর দান রাত ৮টা ৩০ মিনিটে। এখানে দূর্গোৎসবের বিশেষ আকর্ষণ হচ্ছে আনন্দ মেলা ১৭ অক্টোবর সন্ধ্যা ৭টা ৩০ মিনিট থেকে রাত ৮টা ৩০ মিনিট। এ ছাড়াও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান প্রতিদিন সন্ধ্যায় ৭টা ৩০ মিনিটে। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করবেন বাংলাদেশ, ভারত থেকে আগত জনপ্রিয় শিল্পীসহ স্থানীয় শিল্পীরা।
বাংলাদেশ বেদান্ত সোসাইটি নিউইয়র্কের উদ্যোগে সর্বজনীন শারদীয় দূর্গোৎসব অনুষ্ঠিত হবে জ্যামাইকার তাজমহল পার্টি সেন্টারে। আগামী ১৮ এবং ১৯ অক্টোবর দুই দিনব্যাপী শারদীয় এই উৎসবে থাকছে পূজা আর্চনা, প্রসাদ বিতরণ এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এ ছাড়াও থাকবে বেদান্ত সোসাইটির নিজস্ব পরিবেশনা অসীম সাহার নির্দেশনায় রবীন্দ্র নাথ ঠাকুরের দুই বিঘা জমি কবিতার কাব্যনাট্যায়ন। পূজা শুরু হবে সকাল ১১টা ৪৫ মিনিটে। অঞ্জলি প্রদান দুপুর ২টায়, সন্ধ্যা আরতি ও চন্ডিপাঠ সন্ধ্যা ৬টায় এবং প্রতিদিন প্রসাদ বিতরণ পূজা শেষে। ১৮ অক্টোবরের অনুষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে মঙ্গলারতী। নিবেদনে স্বেতা গোস্বামী। বেদান্ত সোসাইটির শিশুতোষ নিবেদন ও সমবেত সঙ্গীত, চন্দ্র ব্যানার্জির পরিচালনায় নৃত্যাঞ্জলীর নিবেদন বিশেষ নৃতালেখ্য সম্ভাবামি যুগে যুগে। এই দিন সঙ্গীত পরিবেশন করবেন ভারতের প্লেব্যাক সিঙ্গার স্বগতা, চন্দ্রা রায়, কৃষ্ণা তিথি ও সজল। ১৯ অক্টোবর কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে আলকান্দা নিবেদনে অমৃতা রায়। নীলা ডান্স একাডেমির বিশেষ আয়োজন, বেদান্ত সোসাইটির শিল্পীদের সমবেত সঙ্গীত, ডালিয়া চৌধুরীর নির্দেশনায় স্বরলিপি, বিশেষ নৃত্যানুষ্ঠান জয়ংদেহী। এ দিন সঙ্গীত পরিবেশন করবেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় শিল্পী বাদশা বুলবুল, ভারতের বিখ্যাত শিল্পী গায়ত্রী এবং রোকসানা মির্জা। প্রতিদিন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হবে সন্ধ্যা ৭টা থেকে।
এ ছাড়াও বাংলাদেশ হিন্দু মন্দির, কুইন্স প্যালেস, গুলশান টেরেসসহ নিউইয়র্কে জ্যামাইকা, ব্রুকলীন ও ব্রঙ্কসসহ বিভিন্ন মন্দিরে দুর্গোৎসবের আয়োজন করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here