print

যৌন হেনস্তার দায়ে গুগলের ৪৮ কর্মী বরখাস্ত

0

ঠিকানা রিপোর্ট: যৌন হেনস্তার দায়ে ২০১৬ সাল থেকে এখন পর্যন্ত ১৩ জন উর্ধ্বতন ব্যবস্থাপকসহ ৪৮ কর্মীকে বরখাস্ত করেছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সার্চ ইঞ্জিন গুগল। প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী সুন্দর পিছাই নিউইয়র্ক টাইমসকে এক চিঠিতে জানিয়েছেন, অশোভন আচরণের জন্য প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে এ কঠোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এর আগে নিউইয়র্ক টাইমসের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, অ্যানড্রয়েড সফটওয়্যার নির্মাতা অ্যান্ডি রুবিনের বিরুদ্ধে অশোভন আচরণের অভযোগ থাকা সত্ত্বেও গুগল তাকে ৯০০ কোটি ডলারের একটি এক্সিট প্যাকেজ দিয়েছে। আর এ প্রতিবেদনের প্রতিক্রিয়াস্বরূপ সংবাদ মাধ্যমটিকে চিঠি দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে।
তবে মি. রুবিনের মুখমাত্র এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। স্যাম সিঙ্গার বলেন, রুবিন প্লেগ্রাউন্ড নামের একটি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান শুরু করার জন্য ২০১৪ সালে গুগল ছেড়ে আসেন। প্রধান নির্বাহী সুন্দর পিছাই নিউইয়র্ক টাইমসকে দেয়া সেই চিঠিতে জানায়, ‘গুগল একটি নিরাপদ কর্মক্ষেত্র প্রাদানে ব্যর্থ’- নিউইয়র্ক টাইমসের এই প্রতিবেদনটি পড়া কষ্টকর ছিল। আমরা আপনাদের অবগত করতে চাই যে, যৌন হেনস্তা কিংবা অশোভন আচরণের বিষয়ে প্রতিটি অভিযোগই আমরা আমলে নিয়ে তদন্ত করি।
আর গত দুই বছরে এ অভিযোগে বরখাস্ত হওয়া কাউকেই এক্সিট প্যাকেজ দেয়া হয়নি।
এর আগে নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে জানানো হয়, ২০১৩ সালে হোটেল রুমে এক নারী কর্মীকে যৌন হেনস্তর অভিযোগ ওঠে মি রুবিনের বিরুদ্ধে। গুগলের পক্ষ থেকে করা এক তদন্তে উঠে আসে ওই নারীর অভিযোগের বিশ্বাসযোগ্যতা রয়েছে। কিন্তু প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়নি। বরং তৎকালীন প্রধান নির্বাহী ল্যারি পেজ তাকে পদত্যাগ করতে বলেন। রুবিন তখন জানান, তিনি কোনো অশোভন আচরণ করেননি। তিনি স্বেচ্ছায় গুগল ছেড়ে যাচ্ছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here