print

মধ্যবর্তী নির্বাচনে নারী ও সমকামী প্রার্থীর ইতিহাস রচনা

2

ঠিকানা ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের ২০১৮ সালের মধ্যবর্তী নির্বাচনে বেশ কয়েকটি ইতিহাস রচিত হয়েছে। এবারের এই নির্বাচনে রেকর্ড সংখ্যক নারী প্রার্থীর জয়ী হয়েছেন, প্রথমবারের মতো মার্কিন সিনেটে দুজন মুসলিম নারী ও প্রতিনিধি পরিষদে আমেরিকান আদিবাসী নারী নির্বাচিত হয়েছেন।

এছাড়া গভর্নর হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন একজন ঘোষিত সমকামী প্রার্থী।

প্রতিনিধি পরিষদে রেকর্ড সংখ্যক নারী : এবারের মধ্যবর্তী নির্বাচনে বুধবার সকাল পর্যন্ত অন্তত ৯৬ জন নারী প্রার্থী প্রতিনিধি পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। এদের মধ্যে ৩১ জন প্রথমবারের মতো এবং ৬৫ জন আগেও নির্বাচিত হয়েছিলন। এর আগে প্রতিনিধি পরিষদে সর্বোচ্চ নারীর সংখ্যা ছিল ৮৫।

প্রথম আদিবাসী আমেরিকান নারী : ডেমোক্র্যাট প্রার্থী শারিস ডেভিডস ও ডেভ হালান্ড মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদে প্রথম আদিবাসী আমেরিকান নারী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। কানসাসে রিপালবিকান প্রার্থীর বিরুদ্ধে জয়ী হয়েছেন ডেভিডস আর নিউ মেক্সিকোতে রিপাবলিকান প্রার্থীকে হারিয়ে জয়ী হয়েছেন হালান্ড। ডেভিড নিজেকে সমকামী হিসেবে ঘোষণা করেছেন। কানসাস থেকে তিনিই প্রথম নির্বাচিত লেসবিয়ান।

সিনেটে প্রথমবারের মতো দুই মুসলিম নারী : প্রথমবারের মতো মার্কিন সিনেটে নির্বাচিত হয়েছেন দুই মুসলিম নারী। তারা হচ্ছেন মিনেসোটা থেকে নির্বাচিত ইলহান ওমর এবং মিশিগান থেকে নির্বাচিত রাশিদা তৈয়ব। ৬ নভেম্বরের মধ্যবর্তী নির্বাচনে তাদের দুজনই ডেমোক্র্যাটিক পার্টির টিকিটে বিজয়ী হন।

প্রথম নির্বাচিত সমকামী গভর্নর : কলোরাডোতে ডেমোক্র্যাটিক প্রার্থী জ্যারেড পোলিস প্রথম ঘোষিত সমকামী হিসেবে গভর্নর নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি এর আগে মার্কিন কংগ্রেসে প্রথম সমকামী ছিলেন। এবার তিনি প্রথম নির্বাচিত গভর্নর হয়ে ইতিহাস গড়লেন।

এছাড়া এবারই টেনেসি থেকে প্রথমবারের মতো নারী সিনেটর নির্বাচিত হয়েছেন। সূত্র: সিএনএন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here