অ্যাপেনডিক্স অপসারণ পার্কিনসনের ঝুঁকি কমায়

14

ঠিকানা রিপোর্ট: পার্কিনসন বা স্মৃতিভ্রম সম্পর্কে এক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন ওয়াশিংটনের বিজ্ঞানীগণ। ৬ নভেম্বর এক গবেষণা প্রতিবেদনে বিজ্ঞানীগণ উল্লেখ করেন যে পার্কিনসনের রোগের সূচনা মূলত মস্তিষ্ক থেকে শুরু হয়না বরং এটির সূত্রপাত হয় গাটে (আঁত) সম্ভবত অ্যাপেনডিক্সে। তাই যে সকল লোক জীবনের প্রথম দিকে অ্যাপেনডিক্স অপসারণ করেন কয়েক দশক পর তাদের কম্পন সৃষ্টিকারী ব্রেন রোগের ঝুঁকি হ্রাস পায়।
গবেষকগণ বলেন, অ্যাপেনডিক্স টিস্যুতে (কলায়) একটি ক্ষুদ্র বাড়তি ও অপ্রয়োজনীয় অঙ্গ পাওয়া যায়। গবেষকগণ বলেন, সম্ভবত এই অপ্রয়োজনীয় ক্ষুদ্র-বাড়তি উপাঙ্গটিই অস্বাভাবিক প্রোটিনের ডিপো হিসেবে কাজ করে। আর পুঞ্জীভূত এই অস্বাভাবিক প্রোটিনই ব্রেনে গিয়ে পার্কিনসন জন্ম দেয়। গবেষকগণ বলেন, সবল মস্তিষ্কবিশিষ্ট অনেক কম বয়সী এবং বেশি বয়সী লোকের বাড়তি উপাঙ্গে অস্বাভাবিক পরিমাণে প্রোটিন জমা হয়ে পার্কিনসনের জন্ম দেয়।
মিশিগানের ভ্যান আন্ডেল রিসার্চ ইনস্টিটিউটের খ্যাতনামা নিউরোসায়েন্টিস্ট এবং জেনেটিসিস্ট স্ট্রেসড ভিভিয়ানে ল্যাবরী বলেন, আমরা অ্যাপেনডেকটমির উপর গুরুত্ব দেইনা। অথচ এমনটি হওয়া উচিত নয়। অ্যাপেনডিক্স হওয়া মাত্রই তা অপসারণ করতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here