প্রিয়াঙ্কা বিয়ে করতে যাবেন হেলিকপ্টারে চড়ে

4

বলিউডের নায়িকার বিয়ে বলে কথা। চমক থাকবে না তা হতেই পারে না। দীপবীরের মত ডেস্টিনেশন ওয়েডিংয়ে শামিল হচ্ছেন না প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। বরং দেশি বিয়েতেই তার আগ্রহ। বিয়ে হবে রাজস্থানের যোধপুরের রাজপ্রাসাদ উমেদ ভবনে। ২৯ নভেম্বর থেকেই বিয়ের অনুষ্ঠান শুরু হতে চলেছে। বিয়ে হবে ২ ডিসেম্বর। বিয়ের জোরদার প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে।
হবু বরও সপরিবারের ভারতে এসে গিয়েছেন। আর প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার মা মধু চোপড়া নিজেই বিয়ের প্রস্তুতি দেখতে সম্প্রতি উমেদ ভবন পরিদর্শন করে এসেছেন। বলিউডের বিভিন্ন সুত্রে জানা গেছে, প্রিয়াঙ্কা উমেদ ভবনে বিয়ে করতে যাবেন হেলিকপ্টারে চড়ে। প্রিয়াঙ্কার পরিবারের পক্ষ থেকে ২৯ নভেম্বর ও ৩ ডিসেম্বরের জন্য হেলিকপ্টার বুক করা হয়ে গিয়েছে। বিয়েতে আগত অতিথিদের উমেদ ভবনে পৌঁছে দেয়ার জন্যও থাকছে হেলিকপ্টার ফেরির ব্যবস্থা। সুত্রের খবর, প্রিয়াঙ্কা বিমানে করে উদয়পুর যাবেন। সেখান থেকে হেলিকপ্টার তাকে পৌঁছে দেবে উমেদ ভবনে। ফটোগ্রাফারদের কোনো সুযোগ দেবেন না বলেই এমন ব্যবস্থা বলে মনে করা হচ্ছে। জানা গেছে, ২৯ নভেম্বর হবে সংগীতের অনুষ্ঠান। আর ৩০ নভেম্বর হবে মেহেন্দি। গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান হবে ১ ডিসেম্বর। জানা গেছে, প্রিয়াঙ্কার সংগীত অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করবেন বলিউডের প্রখ্যাত কোরিওগ্রাফার গনেশ হেগড়ে। আর প্রিয়াঙ্কা সংগীতের সেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন আবু জানি ও সন্দীপ খোসলার ডিজাইন করা পোশাকে। বলিউডের নায়িকা প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে মার্কিন পপ গায়ক নিক জোনাসের প্রেম পর্বের খবর আগেই জানা গিয়েছিল। তবে গত ১৮ আগস্ট প্রিয়াঙ্কার বাড়িতে আয়েজিত রোকা অনুষ্ঠানের পর দুজনের বিয়েতে আনুষ্ঠানিক শিল মোহর দেওয়া হয়। হবু বর নিক অবশ্য প্রিয়াঙ্কার চেয়ে প্রায় ১০ বছরের ছোট। ইতোমধ্যে নিক ও প্রিয়াঙ্কা মার্কিন আদালতে বিয়ের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দাখিল করে অনুমতি চেয়েছেন। শোনা যাচ্ছে, উমেদ ভবনের রাজকীয় পরিবেশে প্রিয়াঙ্কা ও নিক দীপবীরের মতোই দুই দিন বিয়ে করবেন। প্রথম দিন বিয়ে হবে হিন্দু রীতি মেনে। আর দ্বিতীয় দিন হবে খ্রিষ্টান মতে। নিজের নিজের ধর্মীয় রীতির প্রতি মর্যাদা দিয়ে গত সপ্তাহেই দীপিকা ও রণবীর প্রথমে কোঙ্কনী মতে এবং পরে শিখ রীতি অনুযায়ী বিয়ে করেছেন। দীপবীরের দেখানো পথে প্রিয়াঙ্কা ও নিক চলবেন কিনা তা জানা যাবে আগামী সপ্তাহের শেষেই। বিয়ের পর দিল্লি ও মুম্বাইয়ে দুটি পৃথক রিসেপশনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে জানা গেছ্।ে বিয়ের যে কার্ড পাঠানো হয়েছে, তাতেও রয়েছে চমক। সাধারণভাবে বিয়ের কার্ডের সঙ্গে উপহার হিসেবে পাঠানো হয় লাড্ডু। কিন্তু প্রিয়াঙ্কার সবুজ রঙের বিয়ের কার্ড সোনালি বর্ডারে উজ্জ্বল করে তোলা হয়েছে। আর এই কার্ড পাঠানো হয়েছে ম্যাকারণি সহযোগে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here