ঠিকানার কবিতাগুচ্ছ

14

স্মৃতির সত্তায় অমলিন

হাসি রহমান

এইতো আমি আসলাম আমারই সত্তার কাছে।
এসে বসলাম হৃদয়ের মাঝখানে
সেখানে জমা আছে আমার শৈশব- কৈশোর,
আমার জানা-অজানা দিন বেলাকার সকল কর্ম
আর স্মৃতি বিছানো অনুপম শতকথা।

আমিতো এখনো জেগে আছি-
দু’পয়সার বাদাম খাবার আব্দার-অবেলায়
পতুল খেলার নাকি কান্না আর অনিমেশের
পিঠে অকারণে কিল ঘুষি দেবার ইচ্ছায়
উন্মুখ হয়ে- আমি এখনও প্রতিক্ষায় আছি।
আমি অপেক্ষায় আছি-
উঠোনে শুকাতে দেয়া কুমড়াবড়ি আর আমসত্ত্বের
মাতাল গন্ধে মাখা বিশ্বাসের শেকড় ধরে,
শৈশব জাগানিয়া স্মৃতি রসে মায়ের
সোঁদামাখা আঁচলে মুখ লুকিয়ে।

এইতো আমি আসলাম আমারই কাছটিতে
যেখানে মা আমার উঠোনের হেসেল পাড়ে
বসে পিঠাপুলি আর মাছের ঝোল রাঁধতেন।
আজ সেখানে ইট পাথরের অট্টালিকায় সেই মা
আমার- শুয়ে আছে অচেতন হয়ে।

আসলে ওখানে আমিইতো শুয়ে আছি
আশৈশব জীবন্ত স্মৃতিকে হৃদয়ের
গহীনে আঁকড়ে ধরে।
মাগো-এইতো আমি তোমারই আত্মজা
আমি তুমি আর আমরা এক সারিতে।
-নিউ ইয়র্ক।

‘বড় অবেলায়’

শামীম আরা ডোরা

স্মরণে : মরহুম প্রকৌ: মুহাম্মদ মুসা ( বড় ভাই)

বড় অবেলায়,
সাগরে ভাসিয়ে ভেলা
তোমার এই একলা চলা।

বড় অবেলায়,
ঐ আকাশের প্রদীপ নিভিয়ে
তোমার এই যাত্রায় দোলা।

বড় অবেলায়,
চাঁদের পরশ ছোঁয়ায়
মরণেও তোমায় খুঁজে পাই।

বড় অবেলায়,
নিশি ভোর হয়ে যায়
তোমার সমাধিছায়ায়
হয়তো আবার আসবে তুমি
পুণ্য করবে এই শূন্য ভূমি
শরতের এই স্নিগ্ধ সাঁঝের ছায়ায়।
বড় অবেলায়,
কে জানে কোথায়,
হয়তো জোনাকির থোকায়
হয়তো রাতের জ্যোৎস্নায়
কভু যদি একবার মনে হয়
জনম জনম ধরে
তুমি ফিরে এসো
এই আঙিনায়!

বড় অবেলায়,
সব পাখি ঘরে ফিরে
সব চাওয়ার কভু কি ফুরোয়?
আমার প্রদীপ শুধু নিভে নিভে যায়
আজি এ ঝর ঝর বরষায়
যদি ভালো না লাগে
যদি বড় সাধ জাগে
যদি দুটি আঁখি নিশি জাগে
যদি তৃষিত নয়ন বিরহে কাঁদে
যদি অভিমানি মন পালিয়ে বেড়ায়
তবে ফিরে এসো
এই বান্দুটিয়ায়
আমাদের ছোট্ট গায়।
-নিউ ইয়র্ক।

আমার দেশে সবুজ গাঁয়ে

সুফিয়ান আহমদ চৌধুরী

সবুজ গাঁয়ে গাছের ডালে
ডাকছে সুরে পাখি
দুলছে পাতা গাছের পাতা
ভরছে দেখে আঁখি।
সবুজ মাঠে চরায় গরু
রাখাল ছেলে সুখে
কিষাণ যায় ধানের খেতে
খুশির বান মুখে।
শীতের দিনে সবুজ গাঁয়ে
রঙিন ছবি ভাসে
শিশির কণা ঝরছে ঘাসে
কিষাণ বউ হাসে।
আমার দেশে সবুজ গাঁয়ে
মন যে রোজ টানে
বাউল গায় দেশের গান
বাজছে সুখে কানে।
-নিউ ইয়র্ক।

ভোটের ছড়া

সুব্রত চৌধুরী


ভোট এসেছে ভোট
গদির লোভে
ভাংছে-গড়ছে
হরেক রকম জোট।।


দেশে এখন আকাল বড়ো
ঈমানদার আর ন্যায়-নীতির,
দেশ জুড়ে তাই চলছে দাপট
হরিলুট আর দুর্নীতির।।


শীতকালে নেইকো শীত
দেশের হাওয়া গরম,
গদির লোভে নেতাদের
দ্বন্দ্ব এখন চরম।।


যে যাই বলুক,কেয়ার করি না
আসনটি আমার চাই,
নীতির কথা শিকেয় তুলে
শত্রুর গীত গাই।।


ভাগ্যে যে কার ছিঁড়বে শিকে,
আশা-নিরাশার দোল,
তাইতো ওরা খুঁজে ফেরে
নেতা-নেত্রীর কোল।।

খাওয়া ওদের হাওয়া কবে
নিদ গেছে যে টুটে,
টাকার পাহাড় আহার এখন
দশের টাকা লুটে ।।

গদির লোভে ‘বাংলা’ বাঘ?
‘জিন্দাবাদ’এ বন্দী,
‘পাহারাদার’ হতে আঁটছে বসে
হরেক রকম ফন্দি।।

ভোট এসেছে ভোট
হাওয়ায় নাকি
উড়ছে এখন,
কড়কড়ে সব নোট ।।
-নিউজার্সি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here