নবাগত ও কাগজপত্রহীনদের এনওয়াইসি ড্রাইভিং লাইসেন্স ইস্যু প্রসঙ্গে

7

মোহাম্মদ এন মজুমদার

নিউইয়র্ক শহর যুক্তরাষ্ট্র ও পৃথিবীর একটি অন্যতম বৃহৎ ও ব্যস্ততম শহর। এর নগর পরিকল্পনা, বিভিন্ন জাতি ও গোষ্ঠীর সহ অবস্থান সহনীয় ও সমমর্মিতা পৃথিবীর সকল রাষ্ট্র জাতি ধর্ম বর্ণ নিবিশেষে সারা পৃথিবীর মুক্তিকামী মানুষের ভরসা ও আশ্রয়স্থল হিসাবে গণ্য করা হয়। পৃথিবীর বহু রাষ্ট্রে নির্বাসিত নিপিড়িত, নিগৃহীত মানুষের আশ্রয়স্থল হিসাবে পরিচিত এই স্টেটকে পৃথিবীর রাজধানী হিসাবে গণ্য করা হয়।
এবারকার মধ্যবর্তী নির্বাচন আমাদের একদিকে যেমন ইউএস হাউজে সংখ্যাঘরিষ্ঠতা দিয়েছে, অন্যদিকে নিউইয়র্ক স্টেট সিনেটেও আমাদেরকে সংখ্যাগরিষ্ঠতা দিয়েছে। ফলে একদিকে ইউএস হাউজে যেমন আমাদের ডেমক্রেটদের স্বার্থে আইন প্রণয়নে কোনোপ্রকার বাধা থাকলো না। অন্যদিকে নিউইয়র্ক স্টেট সিনেটেও আমাদের পক্ষে আইন প্রণয়নে আর কোনো বাধা থাকলো না।
উল্লেখযোগ্য, নিউইয়র্ক স্টেটের প্রত্যেকটি বিভাগেই ডেমক্রেটদের বর্তমানে সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে যেমন, গভর্নর ক্যুমো একা খাঁটি ডেমক্রেট এসেম্বলি হাউজে ডেমোক্রেট সংখ্যাগরিষ্ঠ এবার সিনেটেও ডেমক্রেটরা পেলো সংখ্যাগরিষ্ঠতা। ফলে প্রত্যেকে হাই এবং এক্সিকিউটিভ পাওয়ারই ডেমোক্রেটদের নিয়ন্ত্রণে চলে এলো। এ পর্যায়ে ডেমক্রেটদের পক্ষে তথা মেডিকেল হেলথকেয়ার শিক্ষা ইত্যাদিতে গণমানুষের চাহিদার প্রতিফলন ঘটবে।
উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে ডেমক্রেটধারীর এসেম্বলিম্যান এবং ব্রঙ্কস কাউন্টি চেয়ারম্যান মাক্রো ক্রিসপো একটি বিল উপস্থাপন করেন যাতে কাগজপত্রহীন অভিবাসীদেরকে ড্রাইভিং লাইসেন্স দেওয়ার একটি প্রস্তাব ছিল। কিন্তু সিনেটে ডেমক্রেটদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা না থাকায় উক্ত বিল পাস হতে পারেনি। তবে বর্তমানে যেহেতু সিনেটে ডেমক্রেটদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে এবং গভর্নরের যেহেতু এই বিলের প্রতি সমর্থন রয়েছে, বিলটি অনায়াসেই পাস হবে এবং বৃহত্তর জনগোষ্ঠী এর সুবিধা পাবে। এই বিলটি পাস হলে যাদের গ্রিনকার্ড এবং ওয়ার্ক পারমিট নাই তারাও ড্রাইভিং লাইসেন্স পাবেন এবং চলাফেরার জন্য অনেক সুবিধা সৃষ্টি হবে। তবে ড্রাইভিং লাইসেন্স পাওয়ার পূর্বশর্ত হিসাবে সমস্ত পয়েন্ট পেতে এবং যে সমস্ত ডকুমেন্ট জমা দিতে হয় এবং ক্লিন ক্রিমিনাল রেকর্ড থাকতে হয়, সেই সমস্ত শর্ত অপরিবর্তিত থাকবে বলে বিজ্ঞজনদের ধারণা। এই রচনা সম্পর্কে আরও তথ্যের জন্য কল দিন- মোহাম্মদ এন মজুমদার ৯১৭-৫৯৭-৬৩৪৯
লেখক পরিচিতি : এই প্রবন্ধটির লেখক মোহাম্মদ এন মজুমদার, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি এবং নিউইয়র্কস্থ টরো ল সেন্টার থেকে আইনে এলএলএম ডিগ্রিধারী, তিনি নিউইয়র্কস্থ একটি ল ফার্মে ১৯৯৯ সাল থেকে কর্মরত আছেন। এ ছাড়াও তিনি নিউইয়র্কের বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। তিনি ব্রঙ্কস প্লানিং বোর্ড-৯ এর সদস্য ফাস্ট ভাইস চেয়ারম্যান এবং ল্যান্ড এন্ড জোনিং কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে ১৯১০ সাল থেকে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। উপরোক্ত লিখাটি লেখকের সুদীর্ঘকালের ল ফার্মে কর্ম অভিজ্ঞতা যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের ল স্কুলের শিক্ষা থেকেই লিখা। এটিকে লিগ্যাল এডভাইজ হিসেবে গ্রহণ না করে আপনাদের নিজ নিজ আইনজীবীর সহযোগিতা নিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here