খান’স টিউটোরিয়ালের সার্টিফিকেট বিতরণ

8

ঠিকানা রিপোর্ট : নিউইয়র্কে বসবাসরত বাংলাদেশি ছাত্র-ছাত্রীদেরকে সুষ্ঠু শিক্ষাদান, সঠিক গন্তব্যস্থানে পৌঁছে দেয়ার অনন্য অবদান সৃষ্টিকারী বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান খানস টিউটোরিয়াল গত ২ ডিসেম্বর কুইন্স সেন্টারে বিকাল ২টায় ৪র্থ গ্রেড থেকে নবম গ্রেড পর্যন্ত মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে সার্টিফিকেট বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেছা, কুইন্স বোরো প্রেসিডেন্টের প্রতিনিধি মাহমুদুল হক, জাতিসংঘে নিযুক্ত ডমিনিকান রিপাবলিকের প্রতিনিধি জোনা খান হুলিয়াহো, খানস টিউটোরিয়েলের পরিচালক নাইমা খান। অনুষ্ঠানের শুরুতেই খানস টিউটোরিয়ালের সিইও ইভান খান বলেন, খানস টিউটোরিয়াল গত ২৫ বছর যাবত বাংলাদেশি কমিউনিটির ছাত্র-ছাত্রীদের সুষ্ঠু শিক্ষা প্রদান, একে অপরের প্রতি সম্মান প্রদর্শনের ক্ষেত্রে কাজ করে আসছে। আজ ৪র্থ গ্রেড থেকে নবম গ্রেড পর্যন্ত ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে কমন কোর পরীক্ষার ক্ষেত্রে অত্যন্ত মেধার সাথে উত্তীর্ণ ১০৩১ জন ছাত্র-ছাত্রীর সনদপত্র প্রদান করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, এ ব্যাপারে খানস টিউটোরিয়াল শুধুমাত্র প্রশংসার দাবিদার নয়; অভিভাবকরাও এর অংশীদার। তাদের সহযোগিতা, বাচ্চাদের প্রতি মনোযোগ আরও একধাপ অগ্রসর। স্বাগত বক্তব্যে ইভান খান ২৫ বছর পূর্বে প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠাতা পরলোকগত বাবা মনসুর খান, পরবর্তীতে মা নাইমা খানের কথা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন।
অনুষ্ঠানে কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফুয়জুননেসা বলেন, বাংলাদেশ শিক্ষা ক্ষেত্রে রোল মডেল। প্রতি বছরের শুরুতেই প্রাথমিক শিক্ষা বোর্ড ছাত্র-ছাত্রীদের হাতে বিনামূল্যে বই তুলে দেয়। এটি একমাত্র বাংলাদেশেই সম্ভব। তিনি খানস টিউটোরিয়ালের কথা উল্লেখ করে বলেন, এখানে শুধু শিক্ষার আলো দেয়া হয় না।

সাথে ছাত্র-ছাত্রীদেরকে একে অপরের প্রতি সম্মান, শ্রদ্ধা ও ভবিষ্যৎ স্বপ্ন গড়ার শিক্ষা দেয়। অন্যদের মধ্যে খানস টিউটোরিয়ালের পরিচালক নাইমা খান, কুইন্স বোরো প্রেসিডেন্টের প্রতিনিধি মাহমুদুল হক, জাতিসংঘে নিযুক্ত ডমিনিকান রিপাবলিকের প্রতিনিধি জনো খান হুলিয়াহো, স্টুডেন্ট লিডার নাদিয়া সুলতানা। নাইমা খান উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। অনুষ্ঠান শেষে ৪র্থ গ্রেড থেকে নবম গ্রেড পর্যন্ত ছাত্র-ছাত্রীদের মঞ্চে উপস্থিত করে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়।
উল্লেখ্য, অনুষ্ঠানে ৪র্থ গ্রেড থেকে নবম গ্রেড পর্যন্ত এক হাজার তিন শত ছাত্র-ছাত্রী উপস্থিত ছিল। তাদের হাতে সার্টিফিকেট তুলে দেয়া হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here