ই-সিগারস কম বয়সীদের জন্য

8

ঠিকানা রিপোর্ট: ইলেকট্রনিক সিগারেট আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের টীন বা কম বয়সীদের জন্য বড় ধরনের বিপর্যয় ডেকে আনতে পারে। আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের সার্জন জেনারেল জেরোম এডামস ২৪ ডিসেম্বর এ ভয়াবহ সতর্কবার্তা উচ্চারণ করেছেন।
এডামস বলেন, আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের লাখ লাখ টীন জুল এবং অনুরূপ ভ্যাপিং ব্রান্ডসের প্রতি অতিমাত্রায় আসক্ত হয়ে পড়েছে এবং সহসা এই আসক্তির লাগাম টেনে ধরা না গেলে অচিরেই কোটি কোটি উঠতি বয়সী আমেরিকানের জীবন বিপন্নের আশঙ্কা রয়েছে। তিনি বলেন, এই ভয়ানক অভ্যাসের অভিশাপ থেকে কম বয়সীদের রক্ষা করতে হলে অভিভাবক, পিতা-মাতা, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা এবং সরকারি কর্মকর্তাদের এগ্রেসিভ বা আক্রমণাত্মক ভূমিকা পালন করতে হবে।
এক সাক্ষাৎকাওে এডামস বলেন, কম বয়সী ছেলে-মেয়েদের ক্ষেত্রে নিকোটিন বিপজ্জনক এবং এটি তাদের স্বাস্থ্যের উপর ভয়ানক প্রতিক্রিয়া করে। তিনি আরও বলেন, নিকোটিন আসক্ত ছেলেমেয়েদের জ্ঞান অনুশীলন, মনোসংযোগ ও স্মৃতিশক্তি বিকাশে বড় ধরনের অন্তরায় সৃষ্টি করে এবং তাদের ব্রেনকে আসক্তির পথে চালিত করে। ফেডারেল কর্মকর্তাদের ধারণা আমেরিকাতে বর্তমানে কমপক্ষে ৩৬ লাখ কমবয়সী ইলেকট্রনিক সিগারেট সেবনে আসক্ত। তাদের বিশ্বাস প্রতি ৫ জন হাই স্কুল ছাত্র-ছাত্রীর ১ জন এবং প্রতি ৩০ জন মিডল স্কুল শিক্ষার্থীর ১জন ইলেকট্রনিক সিগারেট সেবনে আসক্ত। তারা আরও বলেন, গত বছর যতজন হাই স্কুল ছাত্র-ছাত্রী ইলেকট্রনিক সিগারেট সেবনে আসক্ত ছিল এ বছর সে সংখ্যা দ্বিগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে।
স্বাস্থ্য এবং সরকারি কর্মকর্তাগণ জানান, ২০০৭ সাল থেকে ভ্যাপিং যন্ত্রপাতির বিক্রি বৃদ্ধি পেতে থাকে এবং বর্তমানে ৬.৬ বিলিয়ন ডলার ভ্যাপিং যন্ত্রপাতি বিক্রি হয়ে থাকে। স্বাস্থ্য কর্মকর্তাগণ জানান, ইলেকট্রনিক সিগারেট সেবীদের সর্বনিম্ন বয়স ১৮ বছর নির্ধারণ করা হলেও অনেকে তার আগেই ইলেকট্রনিক সিগারেট সেবনে জড়িয়ে পড়ছে। এডামস আর বলেন, নিয়মিত সিগারেট থেকে ইলেকট্রনিক সিগারেট স্বাস্থ্য ঝুঁকি মোটেও কম নয়, বরং অনেক ক্ষেত্রে বেশিই বটে। তাই ইলেকট্রনিক সিগারেট সেবন এবং ভ্যাপিং যন্ত্রপাতি সম্পর্কে ব্যাপক গণসচেতনতা সৃষ্টির উপর এডামস বিশেষ জোর দিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here