মার্কিন কংগ্রেসে রেকর্ড সংখ্যক নারীর শপথ

7

যুক্তরাষ্ট্রের ১১৬তম কংগ্রেসের নতুন আইনপ্রণেতারা ৩ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার শপথ গ্রহণ করেছেন। এদিন কংগ্রেসের নিম্ন কক্ষ (প্রতিনিধি পরিষদ) সদস্য হিসেবে রেকর্ডসংখ্যক নারী শপথ নিয়েছেন। তাছাড়া, কংগ্রেসে আরও কিছু ঘটনা প্রথমবারের মতো হতে দেখা গেছে।

প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার নির্বাচিত হয়েছেন ন্যান্সি পেলোসি। এ পর্বে ডেমোক্র্যাটরা সংখ্যাগরিষ্ঠ অবস্থান নিয়ে প্রতিনিধি পরিষদের নিয়ন্ত্রণে থাকছে। তবে সিনেটে নিজেদের অবস্থান ধরে রেখেছে রিপাবলিকানরা।

হোয়াইট হাউজ, সিনেট এবং প্রতিনিধি পরিষদ দুই বছর রিপাবলিকান দলের নিয়ন্ত্রণে ছিল। তবে গত নভেম্বরে অনুষ্ঠিত মধ্যবর্তী নির্বাচনে প্রতিনিধি পরিষদে বেশী আসনে জয়ী হহওয়ার পর ডেমোক্র্যাটরা এর নিয়ন্ত্রণ নিচ্ছে। প্রতিনিধি পরিষদে ৪৩৫টি আসনের মধ্যে ডেমোক্র্যাটরা জয়লাভ করে ২৩৫টিতে। আর সিনেটে ৫৩-৪৭ আসনে জয়ী হয়েছে রিপাবলিকানরা। বৃহস্পতিবার নতুন কংগ্রেস সদস্যরা শপথ নেন।

নতুন কংগ্রেস যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে বৈচিত্রপূর্ণ রূপ নিয়ে হাজির হচ্ছে। বৃহস্পতিবার প্রতিনিধি পরিষদের সদস্য হিসেবে ১০২ জন নারী এবং সিনেটর হিসেবে ২৫ জন নারী শপথ নিয়েছেন। এর আগে মার্কিন কংগ্রেসে এতো বেশি সংখ্যক নারী সদস্যের উপস্থিতি দেখা যায়নি। তাছাড়া এবার অনেক কিছুই প্রথমবারের মতো হয়েছে।

কংগ্রেসে এবার থাকছেন ইতিহাসের সবচেয়ে কম বয়সী নারী প্রতিনিধি নিউইয়র্কের আলেক্সান্দ্রিয়া ওচাসিও কর্টেজ, মিশিগান ও মিনেসোটা থেকে নির্বাচিত প্রথম দুই নারী প্রতিনিধি রশিদা তালিব ও ইলহান ওমর এবং দুই আদিবাসী নারী প্রতিনিধি নিউ মেক্সিকোর ডেব হালান্ড ও কানসাসের শারিস ডেভিডস। এছাড়া এবারকার কংগ্রেসে দশ জন প্রতিনিধি এলজিবিটি বা সমকামী-উভকামী-রূপান্তরকামী বৈশিষ্ট্যের।

নতুন কংগ্রেসের প্রধান চ্যালেঞ্জ যুক্তরাষ্ট্র সরকারের আংশিক শাটডাউন নিরসন করা। ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকানদের মধ্যে এ নিয়ে সমঝোতার সম্ভাবনা নিয়ে অনেকের মনে প্রশ্ন রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here