মিথ্যা ধর্ষণ মামলায় বাদীসহ দু’জনের কারাদণ্ড

3

ঝালকাঠি : পৌরসভার সাবেক মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আফজাল হোসেনসহ দুজনের বিরুদ্ধে মিথ্যা ধর্ষণ মামলা করায় বাদী ও তার পরামর্শদাতাকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ২ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। গত ৩ ফেব্রুয়ারি বিকালে ঝালকাঠির নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২-এর বিচারক এসকেএম তোফায়েল হাসান এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন মামলার বাদী ও ঝালকাঠি শহরের পালবাড়ী এলাকার মৃত আবুল কাশেম হাওলাদারের স্ত্রী রেনু বেগম এবং তার পরামর্শদাতা আজাদ রহমান। এদের মধ্যে আজাদ পলাতক।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০০৩ সালের ১৬ অক্টোবর রেনু বেগম আজাদ রহমানের পরামর্শে আফজাল হোসেন ও লবণ পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি বাবুল হাওলাদারের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ রেনু বেগমের ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ঝালকাঠি সদর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এবং অভিযোগ তদন্তের জন্য সদরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) নির্দেশ দেন। তবে ডাক্তারি পরীক্ষা ও ইউএনওর তদন্ত প্রতিবেদনে ধর্ষণের অভিযোগ মিথ্যা ও সাজানো বলে উল্লেখ করা হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ২০০৬ সালের ২৪ আগস্ট মামলার আসামি আফজাল হোসেন ও বাবুল হাওলাদারকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। একই সঙ্গে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ১৭ ধারায় মিথ্যা মামলা করার জন্য বাদী রেনু বেগম ও তার পরামর্শদাতা আজাদ রহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচারের জন্য নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২-এ পাঠানো হয়। গত ৩ ফেব্রæয়ারি বিচারক মামলার বাদী রেনু বেগম ও আজাদ রহমানকে ছয় মাসের কারাদÐ এবং ২ হাজার টাকা করে জরিমানার আদেশ দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here