ভিয়েতনামে ২৭ ও ২৮ ফেব্রুয়ারি ট্রাম্প-কিম দ্বিতীয় বৈঠক

3

ঠিকানা ডেস্ক : ফেব্রুয়ারির শেষ দুই দিনে ভিয়েতনামের হ্যানয়ে দ্বিতীয় দফার বৈঠকে বসছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উন।

৮ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প বৈঠকের চূড়ান্ত দিনক্ষণ ও ভেন্যু নির্ধারণের খবর নিশ্চিত করেছেন।

ফেব্রুয়ারিতেই যে দুই নেতা বৈঠকে বসছেন, জানুয়ারির শেষ সপ্তাহেই তা জানা গিয়েছিল হোয়াইট হাউস সূত্রে। এবার পিয়ংইয়ং গিয়ে বৈঠকের সুনির্দিষ্ট তারিখ আর ভেন্যু ঠিক করে এসেছেন যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর কোরীয় দূত।

গত বছরের জুনে সিঙ্গাপুরে ট্রাম্প-কিম ঐতিহাসিক বৈঠক শেষে দুই দেশের মধ্যে এক সমঝোতা চুক্তি হয়। যৌথভাবে কোরিয়া উপদ্বীপকে পারমাণবিক অস্ত্রমুক্ত করার ব্যাপারে একমত হন তারা। তবে নিরস্ত্রীকরণের রূপরেখা সুনির্দিষ্ট না হওয়ায় দু’দেশের মধ্যে দর কষাকষি চলছে।

ট্রাম্প-কিম উভয় পক্ষের আগ্রহে জানুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহে পিয়ংইয়ং এর শীর্ষ দূত কিম ইয়ং চোল ছেন ওয়াশিংটনে আসেন দ্বিতীয় দফার বৈঠকের দিন ক্ষণ নিয়ে আলোচনা করতে।

সেই আলোচনায় দিনক্ষণ নির্ধারিত হলেও ভেন্যু (বৈঠকস্থল) নির্ধারিত হয়নি। দিনক্ষণ ও ভেন্যু চূড়ান্ত করতে ৬ ফেব্রুয়ারি (বুধবার)পিয়ংইয়ংয়ে বৈঠক করতে যান যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর কোরিয়া বিষয়ক দূত স্টিফেন বাইগুন।

সেই বৈঠক ফলপ্রসূ হয়েছে জানিয়ে শুক্রবার এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, ‘ফলপ্রসু আলোচনার পর আমার প্রতিনিধিরা এইমাত্র উত্তর কোরিয়া ছেড়েছে। কিম জং উনের সঙ্গে দ্বিতীয় সম্মেলনের তারিখ এবং সময়ের বিষয়ে একমত হয়েছে তারা।

ফেব্রুয়ারির ২৭ ও ২৮ তারিখে এই বৈঠক ভিয়েতনামের হ্যানয়ে অনুষ্ঠিত হবে’। ট্রাম্প লেখেন, ‘চেয়ারম্যান কিম-এর সঙ্গে সাক্ষাৎ এবং শান্তির পথে এগিয়ে যাওয়ার অপেক্ষায় আছি’।

এ বছরের শুরু থেকে ট্রাম্প বেশ কয়েকবার কিমের সঙ্গে বৈঠকের ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। উত্তর কোরীয় নেতার সঙ্গে কয়েকটি চিঠিও আদান-প্রদান হয়েছে তার। দুই নেতার মধ্যে সম্পর্ক উষ্ণ হওয়ার ইঙ্গিত মিললেও পারমাণবিক অস্ত্র কর্মসূচি বাতিলের বিষয়ে এখনও ঐকমত্য হয়নি দুই দেশের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here