১২ কোটি আমেরিকান হৃদরোগে আক্রান্ত

8


ঠিকানা রিপোর্ট: অবিশ্বাস্য শুনালেও আমেরিকার মোট প্রাপ্ত বয়স্কদের ১২ কোটিরও বেশি অর্থাৎ ৫০%-ই হার্ট ( হৃদযন্ত্র), ভাস্কুলার (সংবহন নালী সংক্রান্ত) কিংবা ব্লাড ভেসেল ( রক্তথলি) সংশ্লিষ্ট রোগ-ব্যাধিতে আক্রান্ত। দ্য আমেরিকান হার্ট এসোসিয়েশনের ১১ ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।
একই প্রতিবেদনে আরও বলা হয় যে, ৭ কোটি ২০ লাখ আমেরিকান উচ্চ রক্তচাপে (হাই ব্লাড প্রেসারে) আক্রান্ত। উচ্চ রক্তচাপের রোগীদের অনেকে নিজের উচ্চ চাপ সম্পর্কে অবহিত নন কিংবা বিষয়টিকে আদৌ আমলে নেন না বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুসারে, ২০১৬ সালে ১২ কোটি ১০ লাখেরও বেশি প্রাপ্ত বয়স্ক আমেরিকান কার্ডিয়োভাস্কুলার বা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। আর এদের ৯% বা ২ কোটি ৪০ লাখের উচ্চ রক্তচাপ থাকায় তাদের হৃদযন্ত্র বিকল হয়ে গিয়েছিল এবং দেহে রক্ত চলাচল বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।
হার্ট এসোসিয়েশনের প্রধান বিজ্ঞানী এবং মেডিক্যাল চিকিৎসক ডঃ মেরীল জেসাপ বলেন, রোগ-ব্যাধির বোঝা কমানোর জন্য আমাদের আরও অনেক কিছু করতে হবে। ২০১৭ সালের আগে উচ্চ রক্তচাপ নির্ণয়ের জন্য সর্বোচ্চ পাঠ ১৪০ এবং সর্বনি¤œ পাঠ ৯০ ধরা হত। ২০১৭ সালে প্রণিত নতুন গাইডলাইন্সে সর্বোচ্চ পাঠ ১৩০ এবং সর্বনি¤œ পাঠ ৮০ ধরা হয়েছে। উচ্চ রক্তচাপের রোগীদের হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক এবং অন্যান্য সমস্যার প্রবল আশঙ্কা থাকে। আর এ ধরনের ঝুঁকিসম্পন্নদের বড় জোর অর্ধেক সংখ্যকই নিজেদের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে পারে।
উচ্চ রক্তচাপ ধরা পড়ার সাথে সাথে ওষুধ সেবন শুরু করতে হবে এমন নয়। শুরুতে অধিকতর স্বাস্থ্যপ্রদ জীবনস্টাইল আরম্ভ করতে হবে। এ নিয়মটি যাদের জন্য ওষুধ প্রেসক্রাইব করা হয়েছে তাদের জন্যও প্রযোজ্য। চিকিৎসকদের মতে পুর ডাইট (অপুষ্টিজনিত খাবার), ব্যায়াম না করা এবং অন্যান্য খারাপ অভ্যাস উচ্চ রক্তচাপের আশঙ্কা ৯০% বাড়িয়ে দেয়।
প্রতিবেদনে বলা হয়, আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি ৩টি মৃত্যুর মধ্যে কমপক্ষে ১টি মৃত্যুর সাথে হার্ট এবং ব্লাড ভেসেলের ব্যাধি জড়িত। তাছাড়া ক্যান্সার এবং নিউমোনিয়ার ফলে শ্বাসকষ্টে যত আমেরিকান প্রতি বছর মারা যায় তার চেয়ে বেশি আমেরিকান মারা যায় হার্ট এবং ব্লাড ভেসেল রোগে।
অন্যান্য সম্প্রদায়ের তুলনায় কৃষ্ণকায় নারী-পুরুষের উচ্চ রক্তচাপ ও হার্ট ডিজিজের হার বেশি। ৫৭% কৃষ্ণকায় মহিলা এবং ৬০ % কৃষ্ণকায় পুরুষ উচ্চ রক্তচাপ এবং হৃদরোগে ভোগেন।
প্রতিবেদন অনুসারে, আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রে কার্ডিয়োভাস্কুলার মৃত্যুও ৪৩% সংঘটিত হয়ে থাকে করনারী হার্ট ডিজিজ বা ক্লগড ( রক্ত জমাট বাধা) বা রক্তনালী বা শিরা শক্ত হয়ে যাওয়ার কারণে। আর স্ট্রোকের কারণে মারা যায় ১৭%, উক্ত রক্তচাপের কারণে মারা যায় ১০% এবং হার্ট ফেইলিউর বা হৃদযন্ত্র অচল হওয়ার কারণে মারা যায় ৯%।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here