খান’স ও মামুন’স টিউটোরিয়ালের সাফল্য বাংলাদেশী ছাত্রছাত্রীদের জয়জয়কার

76

ঠিকানা রিপোর্ট: নিউইয়র্ক সিটির স্পেশালাইড স্কুলে ভর্তি পরীক্ষার রেজাল্ট বেরিয়েছে। নিউইয়র্ক সিটির স্পেশালাইড স্কুলগুলো হচ্ছে- স্ট্যাইভেসেন্ট হাই স্কুল, ব্রঙ্কস হাই স্কুল অব সাইন্স এবং ব্রকলীন টেকনিক্যাল হাই স্কুল। এই স্কুলগুলোর ৩ হাজার আসনের জন্য প্রতি বছর প্রায় ৩০ হাজার ছাত্রছাত্রী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে।

নিউইয়র্কঃ কৃতি মোহাম্মদ নাফিজ হাসানকে ফুলেল শুভেচ্ছা শেখ আল মামুনের।

বাংলাদেশীসহ সকল বাবা- মার স্বপ্ন থাকে তার সন্তান এ সব স্কুলে লেখাপড়া করার সুযোগ পাক। যে কারণে তারা তাদের সন্তানদের স্কুলে লেখাপড়ার পাশাপাশি কোচিং সেন্টারগুলোতে ভর্তি করান। বাবা- মা’র স্বপ্ন তাদের সন্তান যদি এ সব স্কুলে ভর্তি হবার সুযোগ পায় তাহলে তাদের ভবিষ্যত সুনিশ্চিত। যে কারণে সবাই এই পরীক্ষার রেজাল্ট নিয়ে উদ্বিগ্নের মধ্যে থাকেন। সেই স্পেশালাইড স্কুলে ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। ইতিমধ্যেই বাংলাদেশী কোচিং সেন্টারগুলোতে পরীক্ষার ফলাফল আসতে শুরু করেছে। বাংলাদেশী টিউটোরিয়ালগুলোর মধ্যে খান’স টিউটোরিয়াল এবং মামুন’স টিউটোরিয়াল ভাল ফলাফল করেছেন। অন্যান্য কোচিং সেন্টার থেকেও বাংলাদেশী ছাত্রছাত্রীরা উত্তীর্ণ হয়েছে। এই বছর খান’স টিউটোরিয়াল থেকে প্রায় ৩৫৭ জন ছাত্রছাত্রী স্পেশাইলাজড স্কুলে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে। অন্যদিকে মামুন’স টিউটোরিয়াল থেকে প্রায় ৩০ জন ভর্তির সুযোগ পেয়েছে। ফলাফল প্রকাশের পর খান’স টিউটোরিয়াল এবং মামুন’স টিউটোরিয়ালের পক্ষ থেকে ছাত্রছাত্রীদের অভিনন্দন জানানোর আয়োজন করা হয়। এ সব অভিনন্দনে এসে ছাত্রছাত্রীদের উল্লাস করতে দেখা যায়। অন্যদিকে বাবা- মা’দের চোখেও ছিলো আনন্দ অশ্রু। বাবা- মা’রা খান’স টিউটোরিয়াল এবং মামুন’স টিউটোরিয়ালের কর্মকর্তা এবং শিক্ষকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তবে এত আনন্দের মধ্যেও ছিলো একটু বিশাদের ছায়া। আন্দোলন এবং সংগ্রামের কারণে এ সব স্কুলে ২০% সিটি রেখে দেয়া হয়েছে। যারা ৪৮০ থেকে ৫০০ নম্বর পেয়েছে তাদের ডিসকভারী প্রোগ্রামে রাখা হয়েছে। মে মাসে তাদের ফলাফল ঘোষণা করা হবে। অন্যদিকে স্কুলগুলোও তাদের নম্বরের সংখ্যা বাড়িয়ে দিয়েছে। আগে ব্রুকলীন টেকে ভর্তির জন্য নম্বর ছিলো ৪৯৩। এখন করা হয়েছে ৫০০।

অন্যদিকে ব্রঙ্কস সাইন্সে আগে ভর্তির জন্য নম্বর ছিলো ৫১৯। এ বছর তা করা হয়েছে ৫২৭। খান’স টিউটোরিয়ালের কর্ণধার নাঈমা খান জানান, খান’স টিউটোরিয়ালের প্রেসিডেন্ট ড. ইভান খান কোটার বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরেই সংগ্রাম করে আসছেন। আমাদের বক্তব্য হলো মেধারভিত্তিতে ভর্তি হোক। কিন্তু নোংরা রাজনীতির কারণে আমাদের সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। মেধা থাকা সত্ত্বেও কোটার কারণে অনেকে ভর্তিও সুযোগ হারাচ্ছেন।

খান’স টিউটোরিয়ালের পক্ষ থেকে গত ২৩ মার্চ বিকেলে খান’স টিউটোরিয়ালে জ্যাকসন হাইটস শাখায় উত্তীর্ণ ছাত্রছাত্রীদের অভিনন্দন জানানোর ব্যবস্থা করা হয়। অভিনন্দন অনুষ্ঠানে নাঈমা খান বলেন, আজকের দিন হলো আমার জন্য সবচেয়ে খুশির দিন। এই দিনটি আমি অন্যভাবে উপভোগ করি। কারণ আমি গর্বের সাথে বলতে পারি আমাদের এখান থেকে সর্বোচ্চ ছাত্রছাত্রী স্পেশালাইজড স্কুলগুলোতে ভর্তির সুযোগ পাচ্ছে। আজ পর্যন্ত খান’স টিউটোরিয়ালের ১১ টি শাখা থেকে ৩৫৭ জন ছাত্রছাত্রী স্পেশালাইজড স্কুলে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে। এই সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। কারণ রেজাল্ট এখানো আসছে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন খান’স টিউটোরিয়ালের ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ হোসেন এবং আউটরিচের সিনিয়র ডিরেক্টর রিভু ইসলাম। খান’স টিউটোরিয়াল থেক স্পেশালাইজড স্কুলে ভর্তির সুযোগ পাওয়া ছাত্রছাত্রীর মধ্যে নবম গ্রেডের ছাত্রী সপ্তর্ষী বড়–য়া সর্বোচ্চ ৬৬৫ নম্বর এবং অষ্টম গ্রেডের ফারহান রহমান ৬৬৪ নম্বর পেয়েছে। আরো যারা সুযোগ পেয়েছেন তার মধ্যে স্ট্যাইভেসেন্ট হাই স্কুলে ৭৭ জন, ব্রঙ্কস সাইন্স হাই স্কুলে ৮৭ জন, ব্রুকলীন টেক ১৩৯ জন, ব্রুকলীন ল্যাটিন হাই স্কুল ৩২ জন, এইচএসএমএসই হাই স্কুলে ৬ জন, ল্যামেন হাই স্কুলে ১২ জন ও লাগোয়ার্ডিয়া হাই স্কুলে ২ জন।

নিউ ইয়র্ক : শাদমান শাহরিয়ারের হাতে সার্টিফিকেট তুলে দেন শেখ আল মামুন।

মামুনস টিউটোরিয়ালের ৮০ ভাগ স্টুডেন্ট বিশেষায়িত স্কুলে সুযোগ পেয়েছে
মামুনস টিউটোরিয়াল থেকে এবারের স্পেশালাইজ হাইস্কুলে পড়ার সুযোগ পেল ৩০ জন। এরমধ্যে বেশিরভাগই সুযোগ পেয়েছে ব্রঙ্কস সায়েন্স, ব্রুকলিন টেক ও স্টাইভস্যান্ট স্কুলে। এছাড়াও নিউইয়র্কের অন্যান্য স্কুলেও তার স্টুডেন্টরা সুযোগ পেয়েছে। এরমধ্যে বার্ড কুইন্স ও টাউনসেন্ট হ্যারিসও রয়েছে।

মামুনস টিউটোরিয়ালের যারা বিশেষায়িত হাইস্কুলে সুযোগ পেয়েছে এরমধ্যে রয়েছে, ফারিহা তাসনীম, সাদমান শাহরিয়ার, নাদিয়া লিমা, তাহিয়া বৃষ্টি, ভ্যালেন্টিনো ঝাং, মোঃ নাফিজ হাসান, বেনজীর রাইদা, জেকব জেনসন, সারওয়ার হুসেইন, সাইদ ইমতিয়াজ উদ্দিন, সাবিহা সিনথিয়া, নাদিম উল্লাহ, কৃশ শ্রোক, মোঃ নাফিজ হাসান, আয়েশা রুহি, সাদিয়া খাতুন, ওয়াহিদ মুকুল, রাইয়ান পিয়াল। এছাড়াও তাসনিয়া লতিফ, জাবির রহমান, কুসওয়া কায়সার বার্ড কুইন্স ও টাউনসেন্ড হ্যারিসন স্কুলে সুযোগ পেয়েছে।

সম্প্রতি নিউইয়র্কের বিশেষায়িত হাইস্কুল এর ভর্তি পরীক্ষা এসএইচএসএটি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়। প্রকাশিত ফলাফল পাওয়ার পর স্টুডেন্টরা মামুন টিউটোরিয়ালে আসতে থাকে। সঙ্গে তাদের পরিবারের সদস্যরাও। মামুনস টিউটোরিয়ালের কর্ণধার শেখ আল মামুন তার টিউটোরিং সেন্টারের স্টুডেন্টরা ভাল ফলাফল করার খবরে সন্তুষ্ট। বলেন, আমরা স্টুডেন্টদেরকে ভাল ফলাফল করার জন্য সহায়তা করেছি। ভাল ও বিশেষ স্কুলে সুযোগ পাওয়ার পেছনে স্টুডেন্টদের ও তার পরিবারের সদস্যদের বিশেষ অবদান রয়েছে। এছাড়া আমাদের টিচাররা চেষ্টা করেছে যাতে করে স্টুডেন্টরা ভাল ফল করতে পারে। তাদের সহযোগিতার বিষয়টিও উল্লেখ করতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here