সুচিত্রা সেনের জন্ম উৎসব উদযাপিত

4
নিউইয়র্ক : সুচিত্রা সেনের জন্ম উৎসবে অতিথি ও আয়োজকরা। ছবি-ঠিকানা।

ঠিকানা রিপোর্ট : বাংলা চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি মহানায়িকার ২দিনব্যাপী জন্মোৎসব উদযাপিত হয়েছে গত ৫ ও ৬ এপ্রিল সন্ধ্যায়, জ্যাকসন হাইটসের ৭৩ স্ট্রিটের বাংলাদেশ প্লাজায়। ৬ এপ্রিল ছিল সুচিত্রা সেনের ৮৮তম জন্মদিন। মহানায়িকার জন্ম উৎসব পালন উপলক্ষে সুচিত্রা সেন মেমোরিয়াল সেন্টার আলোচনা, কেক কাটা ও সুচিত্রা সেন অভিনীত সিনেমা প্রদর্শনীর আয়োজন করে।

নিউইয়র্ক : সুচিত্রা সেনের জন্ম উৎসবে বক্তব্য রাখছেন ড.সিদ্দিকুর রহমান। ছবি-ঠিকানা।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মোমবাতি জ্বালিয়ে এবং কেক কেটে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি, রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মেমেন। বিশেষ সম্মানিত অতিথি হিসেবে সস্ত্রীক যোগ দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান বক্তব্য রাখেন।

তিনি বলেন, সুচিত্রা সেন তার অভিনয় প্রতিভা দিয়ে কয়েক প্রজন্মের সফল নায়িকা হিসেবে কালোত্তীর্ণ হয়ে আছেন। তিনি তার জীবদ্দশাতেই পর্দার অন্তরালে চলে গিয়েও সবার মনে আজও তার সরব উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়। এমন কি যারা তার ছবি দেখেনি, তারাও আজ সুচিত্রাকে নিয়ে আলোচনায় সরব।

নিউইয়র্ক : সুচিত্রা সেনের জন্ম উৎসবে বক্তব্য রাখছেন গোপাল সান্যাল। ছবি-ঠিকানা।

এর বাইরেও সুচিত্রা সেনকে নিয়ে আজকের সময়ে তার অনুরাগী কামাল হোসেন মিঠু একটি চমৎকার লেখা উৎসর্গ করেন। বক্তব্য রাখেন সৈয়দ মোহাম্মদ উল্লাহ, মুজাহিদ আনসারী, মঞ্জুর আহমেদ, রেখা আহমেদ, অধ্যাপিকা হুসনে আরা, লুৎফুন নাহার লতা, মুহম্মদ ফজলুর রহমান প্রমুখ।

অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় ছিলেন শুভ রায় এবং শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সুচিত্রা সেন মেমোরিয়ালের আহ্বায়ক গোপাল সান্যাল।

তিনি বলেন, সুচিত্রা সেনকে নিয়ে পাবনার প্রগতিশীল সমাজের আন্দোলন সফল হয়েছে। পাবনা শহরে তার পৈত্রিক বাড়ি জামাত-শিবিরের দখলমুক্ত হয়ে সেখানে ‘সুচিত্রা সেন আর্কাইভ’ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। একটি আবক্ষ মূর্তি স্থাপন করা হয়েছে এবং পাবনা এডওয়ার্ড বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের মেয়েদের একটি হোস্টেল সুচিত্রা সেনের নামে প্রতিষ্ঠিত করা হয়েছে।
দু’দিনে সুচিত্রা-উত্তম অভিনীত সাড়ে চুয়াত্তর ও পথে হল দেরী এবং সুচিত্রা-বিকাশ রায় অভিনীত উত্তর ফাল্গুনী প্রদর্শন করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here