মাস্ক ৫৩% সংক্রমণ প্রতিহত করে

    এম এস হক : মাস্কের সঠিক ব্যবহার প্রাণঘাতী করোনা মহামারির অবাধ সংক্রমণ ৫৩ শতাংশ প্রতিহত করতে সক্ষম। দ্য বিএমজে নামক মেডিকেল জার্নাল একাধিক পর্যবেক্ষণ প্রতিহত করতে সক্ষম। দ্য বিএমজে নামক মেডিকেল জার্নাল একাধিক পর্যবেক্ষণ ফলাফলের ভিত্তিতে ২৩ নভেম্বর তথ্যটি প্রকাশ করেছে। অস্ট্রেলিয়া, স্কটল্যান্ড ও চীনের গবেষকেরা নিবিড় পরীক্ষা-নিরীক্ষার ভিত্তিতে করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে মাস্কের ব্যবহার ছাড়াও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা এবং বারবার হাত ধোয়ার উপকারিতার প্রমাণও পেয়েছেন বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। অবশ্য সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা এবং হাত ধোয়ার উপকারিতার পরিমাণ নির্ধারণে আরও গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে বলে গবেষকেরা জানিয়েছেন।
    করোনায় প্রতি ৪২৭ জন আমেরিকানে একজনের মৃত্যু : করোনার মরণথাবা সারা বিশ্ব থেকে ৫১ লক্ষাধিক তরতাজা প্রাণ ছিনিয়ে নিয়েছে বলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা নিশ্চিত করেছে। আর জনস হপকিনস বিশ্ববিদ্যালয় জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি ৪২৭ জনে একজন হারে সর্বমোট ৭ লাখ ৭১ হাজার আমেরিকান প্রাণঘাতী করোনায় মারা গেছেন। অন্যদিকে ফেডারেল পরিসংখ্যান অনুসারে, অক্টোবর থেকে আজ পর্যন্ত আমেরিকায় ৩৯ হাজারেরও বেশি তরতাজা প্রাণ ছিনিয়ে নিয়েছে করোনা। আর সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের (সিডিসি) বর্ণনা অনুসারে, অক্টোবরের শেষ ভাগ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে করোনার নতুন সংক্রমণের হার প্রায় ৪০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। সংস্থাটি আরও জানিয়েছে, গত তিন সপ্তাহ ধরে অব্যাহতভাবে ৩১টি স্টেট এবং ওয়াশিংটন ডিসিতে নতুন আক্রান্ত ও হাসপতালে ভর্তি হওয়া করোনা রোগীর সংখ্যা প্রতিদিন ১০ শতাংশেরও বেশি বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং প্রতি ২৪ ঘণ্টায় ৯২ সহস্রাধিক আমেরিকান নতুন করে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত ও হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন। এ ছাড়া আমেরিকান একাডেমি অব পেডিয়াট্রিকস (এপিপি) এবং চিলড্রেন হসপিটাল অ্যাসোসিয়েশন জানিয়েছে, গত সপ্তাহে পুরো আমেরিকায় ১৮ বছরের কম বয়সী ১ লাখ ৪২ হাজার শিশু-কিশোর নতুনভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। সংস্থাগুলো আরও জানিয়েছে, অক্টোবরের শেষ ভাগ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় নতুনভাবে আক্রান্ত শিশু-কিশোরের সংখ্যা ৪০ শতাংশেরও বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। সংস্থাগুলোর পরিসংখ্যান অনুসারে, করোনায় আক্রান্ত ১৮ বছরের কম বয়সী শিশু-কিশোরের সংখ্যা আমেরিকার মোট জনসংখ্যার ২২.২ শতাংশেরও বেশি। এদিকে ওহাইও, টেক্সাসসহ আমেরিকার অনেক স্টেটে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া করোনায় আক্রান্ত শিশু-কিশোর রোগীর সংখ্যা অব্যাহতভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানের প্রেক্ষাপটে শিশু-কিশোরদের কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রদানে আরও গতি বাড়ানোর জন্য সংস্থাগুলো দাবি করেছে। অন্যদিকে ফেডারেল পরিসংখ্যান অনুসারে, বর্তমানে করোনায় প্রাণহানির শীর্ষে রয়েছে উইমিং। আর পরবর্তী স্থানগুলোতে রয়েছে যথাক্রমে মন্টানা, ওয়েস্ট ভার্জিনিয়া, কেন্টাকি ও আইডাহো। নতুন সংক্রমণের শীর্ষে অবস্থান করছে মিশিগান। পরবর্তী স্থানগুলোতে রয়েছে যথাক্রমে মিনেসোটা, নিউ মেক্সিকো, নিউ হ্যাম্পশায়ার, নর্থ ডাকোটা, উইসকনসিন ও ভারমন্ট। সংস্থাটি আরও জানিয়েছে, করোনার নতুন সংক্রমণের হার সর্বনিম্ন পর্যায়ে রয়েছে পোর্টোরিকো, ফ্লোরিডা ও হাওয়াইতে।
    বুস্টার ডোজ : সিডিসির উপদেষ্টা কমিটির সর্বসম্মত সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে আমেরিকায় ১৮ থেকে ঊর্ধ্ব বয়সীদের ফাইজারের বুস্টার ডোজ প্রদানের সিদ্ধান্ত সংস্থাটির পরিচালক রচেলে ওয়ালেনস্কি গ্রহণ করেছেন বলে জানা গেছে।
    ড. ফাউসির বক্তব্য : কোভিড-১৯ পুরোপুরি ভ্যাকসিনেটেড পরিবারের সদস্যরা মাস্ক ছাড়াই চলতি অবকাশ মৌসুমের অভ্যন্তরীণ অনুষ্ঠানাদিতে অংশ নিতে পারবেন। ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজের পরিচালক এবং হোয়াইট হাউসের প্রধান মেডিকেল অফিসার ড. অ্যান্থনি ফাউসি সিএনএনের ডান ব্যাশকে এক সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেছেন। সিডিসি জানিয়েছে, আমেরিকার ১২ থেকে ঊর্ধ্ব বয়সী জনসংখ্যার ৬৯.২ শতাংশ কিংবা মোট জনসংখ্যার ৫৯.২ শতাংশ বা ১৯ কোটি ৭০ লক্ষাধিক আমেরিকানকে কোভিড-১৯ এর পুরোপুরি ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। তবে ভ্যাকসিন পাওয়ার যোগ্য বিবেচিত জনসংখ্যার প্রায় ২৬ শতাংশ বা ৮ কোটি ২০ লাখ আমেরিকান এখনো কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেননি।